নিজস্ব প্রতিবেদক

বুধবার , ২৭ জুন e ২০১৮

ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার রায়ে আমেরিকান মুসলিমদের নিন্দা


মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট পাঁচটি মুসলিম দেশের উপর প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা বহাল রেখেছে । নিষেধাজ্ঞার তালিকায় থাকা দেশগুলো হলো, ইরান, লিবিয়া, সোমালিয়া, সিরিয়া ও ইয়েমেন। আদালতের এই রায়ে  নিন্দা জানিয়েছে আমেরিকার মুসলিম সম্প্রদায়।

মঙ্গলবার (২৬ জুন)  মার্কিন সুপ্রিম কোর্টের দেওয়া রায়ের পরপরই কয়েকশ মানুষ আদালতের বাইরে জড়ো হয়ে “নো ব্যান, নো ওয়াল” প্ল্যাকার্ডে শ্লোগান দিতে থাকে। তবে বিতর্কিত এই আইন সম্পর্কে প্রধান বিচারক জন রবার্টস তার রায়ে বলেছেন, কোন ধর্ম বিদ্বেষী মনোভাবে আইনটি প্রণয়ন করা হয়নি।

মুসলিমদের বিরুদ্ধে এই আইন “জিরো টলারেন্স” পলিসির পিছনের দৃশ্যপট বলে উল্লেখ করেন ইয়েসমিন তায়েব নামে একজন মুসলিম বংশোদ্ভূত আমেরিকান আইনজীবী। তিনি বলেন, আইনের শাসনে মানবিক মূল্য বজায় থাকা উচিত। আমেরিকানদের বুঝতে হবে যা হচ্ছে তা বৈষম্য ও অগ্রহণযোগ্য।

কানেকটিকাটের ইয়েমেনি বংশোদ্ভূত আরওয়া আল-ইরানি নিজের হতাশা ব্যক্ত করে জানান, এটা কখনো আশা করিনি আমি। শ্বশুড়বাড়ি থেকে তারা আমাকে প্রতি বছর দুবার দেখতে আসতো। এখন আমাকে বা তাদের নাতনিকে দেখা তাদের পক্ষে সম্ভব হবে না।

বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থাগুলো আশংকা করছে, এই রায়ের ফলে আরো অনেক পরিবার বিচ্ছিন্নতার পরিণতি ভোগ করবে।

তবে আদালত তার সিদ্ধান্তকে সমর্থন করায় প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প টুইটারে উচ্ছ্বাসা প্রকাশ করেন। হোয়াইট হাউজ এর এক বিবৃতি ট্রাম্প জানান, আমেরিকা ও দেশটির নাগরিকদের স্বার্থ রক্ষায় অভিবাসন বিষয়ক যেকোন পরিস্থিতিতে তিনি যুদ্ধ চালিয়ে যাবেন।

উল্লেখ্য, গত বছরের সেপ্টেম্বরে, আমেরিকার জন্য হুমকি উল্লেখ করে তালিকায় থাকা দেশগুলো থেকে শরণার্থী আগমণ ও ভ্রমণে উপর নিষেধজ্ঞা জারি করেন ডোনল্ড ট্রাম্প।


সর্বশেষ সংবাদ