নিজস্ব প্রতিবেদক

মঙ্গলবার , ০৩ July ২০১৮

বিশ্বকাপ ২০১৮: ইংল্যান্ড দলটি আসলে কতটা শক্তিশালী

রাশিয়ায় বিশ্বকাপ ফুটবলের প্রাথমিক পর্ব ভালোভাবেই উতরে গেছে ইংল্যান্ড দলটি।

আজ নকআউট পর্বে দলটি মুখোমুখি হচ্ছে কলম্বিয়ার।

কিন্তু বিশ্বকাপ জেতার মতো শক্তি এই দলটির আছে? দলটির মূল শক্তি বা বৈশিষ্ট্যই বা কী?

ইংল্যান্ড দলটি আসলে কতটা ভালো?

যদিও দলটি শেষ ষোলোতে উঠেছে ভালোভাবেই কিন্তু তারপরেও এ প্রশ্নের উত্তর দেয়া কঠিন।

ম্যানেজার সাউথগেট নিজেও স্বীকার করেন যে, যতক্ষণ না ইংল্যান্ড টুর্নামেন্টের শীর্ষ পর্যায়ের দলগুলোকে হারাতে না পারবে ততক্ষণ পর্যন্ত দলটিকে সেরা বলা যাবেনা। আর গ্রুপ পর্বের শেষ খেলায় বেলজিয়ামের কাছে হারার ঘটনা তো আছেই।

আর ২০০৬ এর পর থেকে নক আউট পর্যায়ে কোন ম্যাচ জেতার রেকর্ড নেই এই দলটির।

এবার তিউনিসিয়া আর পানামাকে রীতিমত উড়িয়ে দিয়েছে; কিন্তু দল দুটোর কোনোটিই খুব উঁচু মানের নয়।

আর সে কারণে তাদের বিরুদ্ধে জয় দিয়ে ঠিক বোঝা যাচ্ছেনা যে ইংল্যান্ড আসলে কতটা ভালো দল।

এটি সত্যি দলটিতে বিশ্বমানের স্ট্রাইকার হ্যারি কেইন রয়েছেন এবং এবার খেলছেনও ভালো।

কিন্তু তাদেরও পরীক্ষা হবে আসলে শক্তিশালী দলের বিপক্ষে।

যাদের জ্বলে ওঠা অপরিহার্য্য

আজকের ম্যাচে ইংল্যান্ডের কোনো ভুল করার সুযোগ নেই। কলম্বিয়ার বিরুদ্ধে সামান্য ভুলই শেষ করে দিতে পারে রাশিয়া বিশ্বকাপ।

আর নিজেদের সফল করতে অন্তত পাঁচ সেরা তারকাকে নিজেদের সামর্থ্যের সেরাটাই দিতে হবে আজ।

কালিনিনগ্রাদে বেলজিয়ামের বিপক্ষে ম্যাচের জন্য এভারটন গোলকিপার জর্ডান পিকফর্ডের বেশ সমালোচনা হয়েছে। কিন্তু তারপরেও কোচের আস্থায় আছেন তিনি।

জন স্টোনসকে তার নামের প্রতি সুবিচার করতে হবে রক্ষণভাগের অতন্দ্র প্রহরী হয়ে। সাথে তিনি পাবেন লিচেস্টার সিটির হ্যারি মাগুইরিকে। যদিও মূল ভারটা আসলে থাকবে স্টোনসের ওপরই।

আর মিডফিল্ডে জর্ডান হ্যান্ডারসনই হবে দলটির মূল কাণ্ডারি। আগের দুটো জয়েই তার ভূমিকা আছে। ভালো দলের বিপক্ষে জ্বলের ওঠার তাড়না আছে তার। এমনকি প্রয়োজনে রক্ষণেও ছুটে যেতে পারেন তিনি।

রাহিম স্টার্লিং অসাধারণ এক প্রতিভা। বিশ্বকাপের এ পর্বে এখন তার নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার সুযোগ। ইংল্যান্ডের হয়ে আগের ২২টি ম্যাচে তার গোল নেই। সে রেকর্ড ভাঙ্গারও সুযোগ আছে তার।

আর অধিনায়ক হ্যারি কেইন তো রয়েছেনই। তাকে শুধু তার খেলাটাই চালিয়ে যেতে হবে,তাতেই সুবিচার হবে তার নামের প্রতি।

ইংল্যান্ড দলে এবার এমন কয়েকজন খেলোয়াড় আছে যারা প্রিমিয়ার লীগে এবার খুব একটা সুবিধা করতে পারেননি।

রাদামেল ফ্যালকাও বিশ্বমানের স্ট্রাইকার তাতে সন্দেহ নেই। কিন্তু ইনজুরির কারণে ফ্লপ ছিলেন প্রিমিয়ার লীগে। এখনো ইনজুরি কাটিয়ে ওঠার জন্য লড়াই করছেন। বয়স এখন তার ৩২। কিন্তু হয়তো তিনিই হয়ে উঠবেন প্রতিপক্ষের জন্য বিপজ্জনক।


সর্বশেষ সংবাদ